দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে ডাকাতির প্রস্তুতির সময় অস্ত্র সহ পুলিশের হাতে ৩ ডাকাত আটক

0
11

দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে
ডাকাতির প্রস্তুতির সময় অস্ত্র সহ পুলিশের হাতে ৩ ডাকাত অাটক
কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার-কেদারপুর -বরুড়া সড়কে বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে বুড়িচং থানার দেবপুর ফাঁড়ির পুলিশ ও স্হানীয় লোকজন ধাওয়া করে অস্ত্র সহ ৩ ডাকাত কে অাটক করে।
বুড়িচং থানার ওসি মোঃ মোজাম্মেল হক পিপিএম জানান বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টায় থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর কেদারপুর নামক এলাকায় সড়কে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। তখন বুড়িচং থানার ওসি মোঃ মোজাম্মেল হক পিপিএম এর নেতৃত্বে দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির আইসি আজিজুল বারী,এস অাই নন্দন চন্দ্র সরকার সঙ্গীয় ফোর্স সহ স্হানীয় লোকজন এর সহযোগিতায় ডাকাত দলের স্হান চিহ্নিত করে। তখন ডাকাত দল নিমসার বাজার এর মোকাম – কেদারপুর -বরুড়া সড়কের কেদারপুর একটি হাফিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার সামনে সড়কে গণ ডাকাতির প্রস্তুতি চালায়। এসময় বুড়িচং থানার ওসি মোঃ মোজাম্মেল হক পিপিএম, দেবপুর ফাঁড়ির আইসি আজিজুল বারী,এস অাই নন্দন চন্দ্র সরকার সঙ্গীয় ফোর্স এবং স্হানীয় লোকজন ধাওয়া করে অস্ত্র সহ ৩ ডাকাত কে অাটক করে। ডাকাতদের কাছ থেকে পুলিশ লোহার রড়, চাপাতি, রামদা অন্যান্য অস্ত্র উদ্ধার করে। এসময় ৯-১০ ডাকাত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। অাটক দুর্ধর্ষ ডাকাত হল উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর পাচকিত্তা গ্রামের (পাতরের বাড়ির) মৃত অাব্দুল ওহাবের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০),অাবুল হাসেমের ছেলে অাব্দুল্লাহ (২০), একই এলাকার পাতরের বাড়ির আব্দুল জলিলের ছেলে মোঃ রবিউল হাসান (২০)।
অপরদিকে পুলিশ জিজ্ঞেস বাদে ডাকাত তাদের সঙ্গে থাকা অপর ডাকাতদের নাম জানিয়ে দিয়েছে।
এঘটনায় বুড়িচং থানা পুলিশ শুক্রবার সকালে ৯ জনকে নামীয এবং অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে অাসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। মামলার অপর অাসামীরা হল উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন এর মোকাম গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে মেহেদী হাসান (১৯),মোঃ সুমন (৪৫) পিতা অজ্ঞাত, হায়দার ড্রাইভারের ছেলে মোঃ রিফাত (২৩), মোঃ সজিব (১৯) পিতা অজ্ঞাত, সকলে মোকাম গ্রামের, পাচকিত্তা দক্ষিণ পাড়া গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে সাগর(২৩),একই গ্রামের অাবুলের ছেলে মোঃ শরীফ মিয়া (৪৫)।

রিপ্লাই লিখতে চাই