নরসিংদীর আমদিয়া ইউনিয়নে ইজি বাইক চুরিকে কেন্দ্র করে হামলা।। এক মহিলা সহ আহত দুই

0
48

নরসিংদীতে ইজি বাইক চুরিকে কেন্দ্র করে হামলা।। এক মহিলা সহ আহত দুই
নরসিংদী সদর উপজেলার আমদিয়া ইউনিয়নের পাকুরিয়া গ্রামে ইজি বাইক চুরি কে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলায় এক মহিলা সহ দুই জন আহত হয়েছে।
১৭ জুলাই শুক্রবার সকালে এ ঘটনা ঘটেছে ।
ভুক্তভোগীরা এব্যাপারে মাধবদী থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে।
অভিযোগে জানা যায়, প্রায় মাসখানেক পূর্বে পাকুরিয়া গ্রামের মান্নান মিয়ার একটি ইজিবাইক চুরি হয় ‌। যার মূল্য প্রায় ৭০ হাজার টাকা । একই এলাকার নজরুল মিয়ার পুত্র শরীফ (২৫) উক্ত ইজি বাইকটি চুরি করেছে বলে এলাকায় গুঞ্জন ওঠে । এ প্রেক্ষিতে ইজি বাইক মালিকের ছোট ভাই মোঃ খোরশেদ মিয়া স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় শরীফ ও তার পরিবারের লোকজনের উপর চাপ সৃষ্টি করে। ফলশ্রুতিতে শরীফের পিতা নজরুল উক্ত অটো ইজি বাইকটি চুরি করে অন্যত্র বিক্রি করে দিয়েছে বলে স্বীকার করে। এবং তাদেরকে ইজি বাইক বিক্রির টাকা ফেরত দিবে বলে অঙ্গীকার করে । কিন্তু নজরুল টাকা ফেরত না দিয়ে কালক্ষেপন করতে থাকে। নজরুল গং এলাকাবাসীর সাথে বলতে থাকে যে, প্রয়োজনে খুন-জখম করবে তবুও টাকা ফেরত দিবে না । ফলে ইজিবাইকটির মালিক মান্নান ও তার ছোট ভাই খুরশিদ মিয়ার সাথে মনোমালিন্য ও বিরোধের সৃষ্টি হয় । এর জের ধরে মান্নান গংদের মারার জন্য নজরুল গং সুযোগের অপেক্ষায় থাকে। ঘটনার দিন সকাল অনুমান পৌনে দশটায় নজরুল গং প্রতিবেশী ফজলুল হক ওরফে রাজা মিয়ার উঠানে মান্নান পুত্র গোলাম কিবরিয়া (৩৫) কে একা দেখতে পায় । এ সুযোগ পেয়ে নজরুল ও তার চার পুত্র মোঃ হাবিবুর (২৩), সজীব (২৮), শরীফ (২৫), তাদের দাদা ইসমাইল সহ আরো ২/৩ জন লাঠি রড চাপাতি ছুরি ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গোলাম কিবরিয়ার উপর হামলা চালায় । এলোপাথাড়ি মারপিটে নীলা ফুলা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখমাবস্থায় কিবরিয়া ডাক চিৎকার শুরু করে । চিৎকার শুনে তাকে রক্ষার্থে তার চাচী আয়েশা বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও নজরুল গং বেধড়ক মারপিট করে রক্তাক্ত জখম ও শ্লীলতাহানি করে। আহত দু’জনের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে নজরুল গং খুন-জখমের হুমকি দিয়ে চলে যায় । খোরশেদ এ সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত লোকজনের সহযোগিতায় রক্তাক্ত অবস্থায় ভাবি ও ভাতিজাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নরসিংদী হাসপাতালে ভর্তি করে । তারা কিছুটা সুস্থ হলে তাদের কাছে বিস্তারিত জেনে এবং বড় ভাই মান্নান মিয়া ও এলাকার লোকজনের সাথে পরামর্শ করে ঐদিনই মোঃ খোরশেদ মিয়া বাদী হয়ে উপরোল্লেখিতদের বিরুদ্ধে মাধবদী থানায় অভিযোগ দাখিল করে ।

রিপ্লাই লিখতে চাই