মহেশপুরে গত এক মাসে রোড ডাকাতী’সহ ৫ বাড়িতে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার’সহ লক্ষ লক্ষ টাকা লুট।

0
155

মহেশপুরে গত এক মাসে রোড ডাকাতী’সহ ৫ বাড়িতে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার’সহ লক্ষ লক্ষ টাকা লুট।

মোঃ কচিম উদ্দিন
বার্তা সম্পাদক(নাজাত টিভি);

ঝিনাইদহের মহেশপুরে গত এক মাসে রোড ডাকাতী সহ ৫ বাড়িতে ডাকাতী সংঘটিত হয়েছে। এতে লক্ষ লক্ষ নগত টাকা সহ প্রায় ২০ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে ডাকাতীরা।
তথ্য সুত্রে জানা গেছে গত নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে এ পর্যন্ত মহেশপুর উপজেলার রোড সহ বিভিন্ন গ্রামের ৫ বাড়িত ডাকাতী সংগঠিত হয়েছে। এতে উপজেলার ফতেপুর ইউপির সাড়াতলা গ্রামে মরহুম বেড়ে এবং মুমুর্ষ রোগী লুৎফর রহমানের বাড়িতে ১৫/২০ জনের একটি ডাকাতদল গভীর রাত্রে প্রবেশ করে নগত কয়েক লক্ষ টাকা সহ স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। এছাড়া গত ২৫ নভেম্বর দিবাগত গভীর রাত্রে উপজেলার বিদ্যাধরপুর বাজারের পাশে আবু সাইদের বাসায় ভাড়াটিয়া শিক্ষিকা নাজমা বেগম এবং বাসা মালিক সাইদের বাড়িতে ১০/১৫ জনে একদল ডাকাত ঘরের গ্রীল কেটে ঘরে মধ্যে ঢুকে কয়েক লক্ষ নগত টাকা সহ ৭/৮ ভরি স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। গত ২৮ নভেম্বর রাত্রে কালিগঞ্জ-জীবন নগর মহা সড়কের পুরন্দর পুর নামক স্থানে রোড়ে গাছ ফেলে কয়েকটি ট্রাক আটকিয়ে তাদের নিকট থেকে নগত টাকা কেড়ে নেয়। পরদিন ২৯ নভেম্বর রাত্রে ফতেপুর ইউপির খাঁ পুরন্দরপুর গ্রামের মুলডাঙ্গা পাড়ার ইছা মন্ডলের বাড়িতে গভীর রাত্রে একদল ডাকাত প্রবেশ করে তাদেরকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগত টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। সর্বশেষ ১লা ডিসেম্বর দিবাগত গভীর রাত্রে ইউপির চাঁদপুর পাড়ার মৃতঃ শামছুদ্দিন সর্দারের মেজ ছেলে ও ফতেপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম সর্দারের ভাই আবুল কালাম আজাদ (ভোলা) এর বাড়িতে ১০/১৫ জনের একটি ডাকাত দল প্রবেশ করে ঘরের ক্লপসি গেটের তালা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগত ১০ হাজার টাকা ৩টি মোবাইল সহ প্রায় ৮ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে। একের পর এক ডাকাতী ঘটনায় মহেশপুর থানায় ২/১ টি মামলা / জিডি হওয়ায় থানা পুলিশ উল্লেখ্য সাড়াতলা গ্রামের ডাকাতী ঘটনায় ৩ ব্যক্তিকে আটক করে কোট হাজতে পাঠিয়েছে। এছাড়া আবুল কালাম আজাদের বাড়িতে ডাকাতীর ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

রিপ্লাই লিখতে চাই